বাংলা নিউজ ২৪x৭ : বর্তমানে মুম্বাইয়ে গবেষণার কাজে ব্যস্ত রাজস্থানের কোটার বাসিন্দা মুর্তজা আলী হামিদ।তিনি প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ তহবিলে 110 কোটি টাকা সাহায্য করার কথা ঘোষণা করেন। তিনি বলেন – দেশের 40 জন সাহসী সৈনিককে দেশ হারিয়েছেন ,আমি সেনাবাহিনী ও তাদের পরিবারের কে সাহায্য করতে চেয়েছিলাম তাই আমি 110 কোটি টাকা জাতীয় রিলিফ ফান্ডে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। তিনি আরো বলেন যে- তিনি “ফুয়েল বার্ণ বিকিরণ প্রযুক্তি” নামে একটি প্রযুক্তি উদ্ভাবন করার দাবি করেছেন যা GPS, ক্যামেরা বা অন্য কোন যন্ত্র ছাড়াই কোনও যানবাহন বা বস্তুর সন্ধান এবং সনাক্ত করতে সহায়তা করে। তিনি দাবি করেন যে তাঁর উদ্ভাবন সরকার কর্তৃক স্বীকৃত হয়েছে, তবে পুলওয়ামার মতো ঘটনাটি এড়ানো যেতে পারে। “আজ আমার আর্থিক সহায়তা আছে তবে তিন বছর আগে আমি প্রযুক্তিগত সহায়তা দিচ্ছিলাম। এটি গৃহীত হলে আক্রমণ বন্ধ করা হতে পারে।
যদিও প্রধানমন্ত্রীর জাতীয় তহবিলের উপসচিব অনিক কুমার দাস মুর্তাজা আলী হামিদের ব্যক্তিগত তথ্য চেয়েছেন। এবং ফার্স্ট মার্চ তারিখে মুর্তাজা কে জবাব এর উত্তরে জানানো হয় যে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে তা তার শীঘ্রই দেখা হতে পারে। 44 বছর বয়সে এই বিজ্ঞানী জন্ম থেকে 95 % অন্ধ। পরিবারের অটোমোবাইল লুব্রিকেন্ট এর ব্যবসা আছে।

তার এই পদক্ষেপকে কুর্নিশ জানিয়েছে সমগ্র ভারত বাসি। এইরকম হৃদয়বান ব্যক্তি গুলিই ভারতমাতার আসল সন্তান বলে উল্লেখ করেছে অনেকেই

Leave a Reply