রেজাউল ইসলাম : সারা দেশের ৫৪৩টি আসনে লোকসভা নির্বাচনের নির্ঘণ্ট ঘোষণা করছে নির্বাচন কমিশন। মোট সাতটি দফায় হবে লোকসভা নির্বাচন। ভোট শুরু হবে ১১ এপ্রিল থেকে। মোট সাতটি দফায় হবে ভোটগ্রহণ। ভোটগণনা হবে ২৩ মে। বিজ্ঞান ভবনে এই সাংবাদিক বৈঠক করছেন মুখ্য নির্বাচন কমিশনার সুনীল অরোরা।

বর্তমান লোকসভার মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে চলতি বছরের ৩ জুন। সারা দেশে লোকসভা নির্বাচনের সঙ্গে বিধানসভা নির্বাচন হবে অন্ধ্রপ্রদেশ, ওড়িশা, সিকিম এবং অরুণাচল প্রদেশ— এই চারটি রাজ্যেও।

এই নির্ঘণ্ট ঘোষণার সঙ্গেই সারা দেশে চালু হয়ে যাচ্ছে নির্বাচনী আচরণ বিধি। অর্থাৎ, নতুন কোনও প্রকল্পের ঘোষণা করতে পারবে না কেন্দ্র এবং রাজ্য সরকারগুলি।

পশ্চিমবঙ্গের ৪২টি লোকসভা আসনে ভোট হবে সাত দফায়। প্রথম দফায় ভোট ২ আসনে, দ্বিতীয় দফায় ভোট ৩ আসনে, তৃতীয় দফায় ভোট ৫ আসনে। চতুর্থ দফার ভোট ৮ আসনে, পঞ্চম দফার ভোট ৭ আসনে, ষষ্ঠ দফায় ভোট ৮ আসনে এবং সপ্তম দফায় ভোট হবে ৯ আসনে।
প্রথম দফার হবে ২০টি রাজ্যের ৯১ আসনে।
দ্বিতীয় দফার ভোট হবে ১৩ রাজ্যের ৯৭ আসনে।
তৃতীয় দফার ভোট হবে ১৪ রাজ্যের ১১৫ আসনে।
চতুর্থ দফার ভোট হবে ৯ রাজ্যের ৭১ আসনে।
পঞ্চম দফার ভোট হবে ৭ রাজ্যের ৫১ আসনে।
ষষ্ঠ দফার ভোট হবে ৭ রাজ্যের ৫৯ আসনে।
সপ্তম দফার ভোট হবে ৮ রাজ্যের ৫৯ আসনে।
প্রথম দফার ভোট হবে ১১ এপ্রিল, দ্বিতীয় দফার ভোট ১৮ এপ্রিল, তৃতীয় দফার ভোট ২৩ এপ্রিল, চতুর্থ দফার ভোট ২৯ এপ্রিল, পঞ্চম দফার ভোট ৬ মে, ষষ্ঠ দফার ভোট ১২ মে এবং সপ্তম দফার ভোটগ্রহণ হবে ১৯ মে।
সাত দফায় ভোটগ্রহণের পর ভোটগণনা হবে ২৩ মে।
মোট সাতটি দফায় হবে লোকসভা নির্বাচন।


গুগল, ফেসবুক, টুইটার সহ সমস্ত সোশ্যাল মিডিয়ায় প্রচারের নথি জমা দিতে হবে নির্বাচন কমিশনে।
অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপের মাধ্যমে নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ জানানো যাবে।
ভোটের ৪৮ ঘণ্টা আগে সমস্ত কেন্দ্রে মাইক, লাউড স্পিকার ব্যবহার নিষিদ্ধ।
সমস্ত ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম)-এ থাকবে প্রার্থীদের ছবি।
সারা দেশে মোট দশ লক্ষ ভোটগ্রহণ কেন্দ্র।

লেখক : প্রফেসর , আলামিন মেমোরিয়াল মাইনোরিটি কলেজ ( বি এড )

Leave a Reply