সি পি আই চিহ্ন

বামফ্রন্ট এর শরিক দল সি পি আই। সিপিআই পশ্চিমবঙ্গে ব্যানার এ পরিণত হয়েছে। সিপিআই নেতৃত্ব বরাবরই অভিযোগ করে যে সি পি এম এর জন্যই তাদের বহু নেতা কর্মী সি পি আই ছেড়েছিলো। বামফ্রন্ট এ একাধিপত্য চালিয়েছে সিপিএম। কাল ব্রিগেড সমাবেশ শেষ বক্তা কানহাইয়া কুমার। কানহাইয়া কুমার জে এন ইউ এর এ আই এস এফ এর প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। এ আই এস এফ হলো সি পি আই এর ছাত্র সংগঠন।
ব্রিগেড এ সকলে চেয়েছিলো বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের উপস্থিতি। কিন্তু চোখের সমস্যা ও বয়স জনিত কারণে বুদ্ধদেব বাবু আস্তে পারছেনা বলে জানান। প্রাক্তন মন্ত্রী গৌতম দেব ও অসুস্ত। বর্তমানে সি পি এম শতরূপ ঘোষের মতো কিছু নেতৃত্ব কে সামনে নিয়ে এলেও তারা ততটা জনপ্রিয়তা অর্জন করতে পারেনি।
মোদী বিরোধী আন্দোলের মধ্যে দিয়ে ভারত বর্ষ চিনেছে কানহাইয়া কুমার কে। বর্তমান এই তরুণ তুর্কি নেতা বক্তা হিসাবে সফল। আর বামফ্রন্ট এর এই ব্রিগেড সমাবেশে তাই ডাক পড়েছে কানহাইয়া কুমার কে। যে সি পি এম গুরুদাস দাস গুপ্তের মতো নেতাকে যোগ্য সম্মান দেয়নি তারাই আজ কানহাইয়া কানহাইয়া করছে।
কিছুদিন আগেই রানী রাসমণি রোড এ সিপিআই এর সম্মেলনে এসেছিলেন কানহাইয়া। বক্তা হিসাবে তিনি যে কত সফল তার একটি ভিডিও লিংক দেওয়া হলো।

Leave a Reply