ফনা তুলে ও চুপচাপ বাংলাদেশ সরে গেল ফনি

0
36

বাংলা নিউজ অনলাইন ডেস্ক : গত এক সপ্তাহ ধরে আবহাওয়া দপ্তর এর আগাম পূর্বাভাস অনুযায়ী ঘূর্ণিঝড়ে পশ্চিমবঙ্গ লন্ডভন্ড করে দেওয়ার যে পূর্বাভাস ছিল তা এক প্রকার নস্যাৎ করে দিয়ে ওড়িশা হয়ে চুপচাপ বাংলাদেশের দিকে সরে গেল ঘূর্ণিঝড় ফনি। বঙ্গ রাজ্যে ঘূর্ণিঝড়ের সেরকম কোন প্রভাব পড়েনি বলেও জানিয়েছে রাজ্য প্রশাসন। তবে দীঘা ও সুন্দরবনের সমুদ্র তীরবর্তী এলাকাগুলিতে ঝড়ের কিছুটা প্রভাব পড়েছে বলে জানা যায়। সেখানে কিছু মাটির ঘর বাড়ি ভেঙে পড়েছে।

গতকাল রাত থেকে রাজ্য প্রশাসনের পক্ষ থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সমস্ত রাত জেগে ঘূর্ণিঝড় এর সমস্ত ক্ষয়ক্ষতি তদারকি করেছেন। কলকাতা পুরসভার মেয়র ফিরহাদ হাকিম ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলার জন্য সারা রাত পুরসভার কন্ট্রোল রুমে কাটিয়ে দিয়েছেন। কিন্তু ঘূর্ণিঝড়ের সেরকম কোনো প্রভাব না থাকায় একপ্রকার খুশি রাজ্যবাসী।

তবে ওড়িশা রাজ্যের গোপালপুর ও পুরীতে ঝড়ের ব্যাপক প্রভাব পড়েছে। গাছপালা ভেঙে পড়েছে ,ভুবনেশ্বর স্টেশন এর চাল উড়ে গিয়েছে ,তছনছ হয়ে গিয়েছে ভুবনেশ্বর এয়ারপোর্ট। সূত্রের খবর ঘণ্টায় প্রায় ১৯৫ কিলোমিটার বেগে ঘূর্ণিঝড় হয়ে গিয়েছে।কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে ঘূর্ণিঝড় ফনির মোকাবিলার জন্য ১০৮৬ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছিল। যুদ্ধকালীন তৎপরতায় ক্ষয়ক্ষতি মেরামতের কাজ চলছে।

Leave a Reply