বাংলা নিউজ ওয়েব ডেস্ক : সিপিআইএম নেতা কমরেড অজয় মণ্ডল এর মৃত্যু, একটি প্রশ্ন চিহ্ন তুলে দিলো। ভারতীয় মিডিয়া বরাবরই প্রমাণ করতে উদ্যোগী যে ভারত বর্ষ থেকে সিপিআইএম তথা বামফ্রন্ট পুরোপুরি নিশ্চিহ্ন হয়ে গিয়েছে। তাদের কোন অস্তিত্ব নেই এবং মিডিয়াগুলোতে লোকসভা নির্বাচনে অগ্রিম এক্সিট পোল এ বারবার সিপিএমকে শুন্য হিসাবে দেখানো হয়েছে। কিন্তু সত্যিই কি বামফ্রন্ট মুছে গিয়েছে মানুষের মন থেকে ?


পাথর প্রতিমার সিপিআইএম নেতা কমরেড অজয় মন্ডলের মৃত্যু চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিয়েছে যে বামফ্রন্ট এখনো মুছে যায়নি। পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল কংগ্রেস ক্ষমতায় আসার পর থেকে বিজেপিকে দ্বিতীয় স্থানে রাখতে শুরু করেছে ইলেকট্রনিক মিডিয়া বা সংবাদ মাধ্যমগুলি। অনেকেই হয়তো বলছে তৃণমূল কংগ্রেস সরকার বিজেপিকে পশ্চিমবঙ্গের মাটিতে শক্ত হয়ে দাঁড়াতে সাহায্য করছে। সে সমস্ত কথা মেনে নিলেও সি পি আই এম দিনের পর দিন মানুষের সঙ্গে মাঠে ময়দানে যে যোগাযোগ স্থাপন করেছে তা মন থেকে মেনে নিতে পারছে না কোনো দল ই। কমরেড অজয় মন্ডল পাথরপ্রতিমা দলের সিপিআইএম এর নির্বাচনী আহ্বায়ক হিসাবে দাবি করেন সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তী। তিনি বলেন কমরেড অজয় মন্ডল দীর্ঘদিনের পার্টির একজন ভালো কর্মী। তিনি একের পর এক তৃণমূল দল ভাঙতে শুরু করেছিল। মানুষদের বোঝাতে তিনি সক্ষম হয়েছিল যে তৃণমূলী বাহিনী থেকে মুক্ত হতে সি পি আই এম ই একমাত্র পথ।


যার জন্য দিনের পর দিন মানুষের সঙ্গে সংযোগ স্থাপনের ক্ষেত্রে তিনি কাজ করতেন। মৃত্যুর আগের দিন বিকালে ও পার্টির কাজে তিনি ছিলেন বলে দাবি করেন সুজন চক্রবর্তী। রাতে মাছ ধরতে যাওয়ার পথে তাকে আক্রমণ করে তৃণমূলের জল্লাদ বাহিনী। তারা নৃশংসভাবে হত্যা করে নালাতে ফেলে দেয় অজয় মণ্ডলের দেহ। প্রশ্ন উঠছে বঙ্গে যদি বিরোধী বিজেপি হয় তাহলে সিপিএম নেতার মৃত্যু হয় কি করে ? যে সিপিএম একদম মুছে গেছে উঠছে প্রশ্ন।


গত কয়েকদিন ধরে কিছু সংবাদ মাধ্যমে দেখানো হয়েছিল ইনভেস্টিগেশন ব্যুরো রিপোর্ট অনুযায়ী বাংলায় সিপিএম তাদের ভোট ব্যাংক বাড়িয়ে নিয়েছে এবং দিনের পর দিন তাদের মিটিং মিছিল কর্মসূচি মানুষের মনে জায়গা করে নিয়েছে। ৩ এপ্রিল বামফ্রন্টের ব্রিগেড সমাবেশ সেটাই প্রমান করে। প্রায় ১২ লক্ষ্ লোকের জমায়েত নজর কেড়েছিল বিরোধীদের। ফলে এবারের লোকসভা নির্বাচনে ভালো ফল করতে পারে সিপিআইএম। তারপরেই আক্রমণ শুরু হয় একের পর এক সিপিএম নেতাকর্মীদের ওপরে। ডায়মন্ড হারবার এর সিপিএম প্রার্থী ফুয়াদ হালিম এর মিছিলে হামলা ও সেটাই প্রমাণ করে।

সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তীর ফেইসবুক লাইভ

Leave a Reply