নিজস্ব প্রতিনিধি : আজ একটি তামিল চ্যানেলে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে বিজেপি সাংসদ সুব্রামনিয়াম স্বামী বলেন যে, তিনি চৌকিদার নন তিনি ব্রাহ্মণ। বিগত কিছুদিন ধরে লক্ষ্য করলে দেখা যাবে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তার নামের আগে চৌকিদার শব্দটি যোগ করেছিলেন। এবং তাই দেখাদেখি বিজেপির প্রতিটা নেতা নেত্রী ,তারা তাদের টুইটার অ্যাকাউন্টে নামের আগে চৌকিদার কথাটি উল্লেখ করেছেন। বিজেপির কর্মীরাও পর্যন্ত ফেসবুক-টুইটারে নামের আগে চৌকিদার শব্দটি যোগ করতে শুরু করেছে।
যখন প্রায় সব বিজেপির নেতা নেত্রী চৌকিদার শব্দটি তার নামের আগে যোগ করছে, ঠিক সেই সময়ে বিজেপি নেতা সুব্রামানিয়াম স্বামী বলেন যে তিনি চৌকিদার নন তার নামের আগে চৌকিদার যোগ করার কোন প্রশ্নই নেই। তিনি ব্রাহ্মণ। ব্রাহ্মণ এর কাজ চৌকিদারকে দিয়ে কাজ করানো। নরেন্দ্র মোদি সরকার ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে যে প্রচার চালিয়েছিলেন ,তাতে তিনি বলেছিলেন যে – আপনারা আমাকে দেশের চৌকিদার নিযুক্ত করুন আপনাদের কোন অসুবিধা হবেনা আমি আপনাদের পাহারা দেবো। কিন্তু ২০১৯ সাল হতে চলল ,আবার লোকসভা নির্বাচন। এই মতো অবস্থায় নতুন করে বিরোধীরা যখন প্রশ্ন তুলল যে নরেন্দ্র মোদী পাঁচ বছরে সত্যিই কি চৌকিদারের কাজ করেছেন ? না শুধুমাত্র আম্বানির আর আদানির চৌকিদার হয়েই সময় কাটিয়েছেন।
কিন্তু বিরোধীদের সমস্ত অভিযোগ এর গুরুত্ব না দিয়ে নরেন্দ্র মোদী তার নামের আগেই প্রথমে যুক্ত করেছিলেন চৌকিদার নরেন্দ্র মোদি। মুহূর্তে ভাইরাল হয়ে যায়। সোশ্যাল মিডিয়াতে বিজেপির প্রায় সমস্ত স্তরের নেতাকর্মীরা নামের আগে চৌকিদার যোগ করলেও সুব্রামনিয়াম স্বামী যোগ করেননি। এর আগেও বিজেপির রাজ্যসভার সংসদ অনেক ক্ষেত্রে নরেন্দ্র মোদি সরকারের সমালোচনা করেছে।

Leave a Reply