২০ লক্ষ্ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হবে রাজ্যকে। ” ভবিষ্যতের ভূত ” পেছন ছাড়ছেনা

0
105

বাংলা নিউজ ব্যুরো: অনিক দত্ত পরিচালিত ছবি “ভবিষ্যতের ভূত” এর অবাধ চিত্র প্রদর্শনে বাধা প্রদানের জন্য রাজ্য সরকারকে কুড়ি লক্ষ টাকা জরিমানা করল সুপ্রিম কোর্ট। ঘটনার সূত্রপাত আগেই। “ভবিষ্যতের ভূত” ছবিটি মুক্তির এক দিনের মধ্যেই হল কর্তৃপক্ষ জানিয়ে দেয় তারা ছবিটি চালাতে পারবে না। কারণ উপর মহলের চাপ আছে।
কিন্তু কেন হল মালিকদের এই সিদ্ধান্ত। লিখিতভাবে পরিষ্কার করে কিছু বলা হয়নি। তবে পরিচালক অনিক দত্ত বলেছিলেন যে রাজ্য সরকারের তরফে পুলিশ ছবিটি একবার দেখতে চেয়েছিল। কিন্তু যেহেতু ছবিটি সেন্সরের ছাড়পত্র আছে তাই সেখানে পুলিশকে দেয়ার কোন মানে হয় না। এই ভেবেই অনিক দত্ত বিষয়টি এড়িয়ে যায়।
হল মালিকদের কাছে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে অলিখিত নির্দেশ এর ফলে ছবিটির মুক্তি আটকে যায়। এর প্রতিবাদ শুরু হয়। শঙ্খ ঘোষ , সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের মতো ব্যাক্তিত্বরা প্রতিবাদ করেন। অবশেষে কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয় ছবির নির্মাতা পরিচালক ও প্রযোজক সংস্থা। হাইকোর্ট নির্দেশ দেন রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব ও ডিজিপি কে।ছবিটি সুষ্ঠুভাবে পরিচালনার ক্ষেত্রে সরকারের সহযোগিতা করতে হবে।
কিন্তু হাইকোর্টের নির্দেশ থাকা সত্ত্বেও তেমন ভাবে কোনো হল ছবিটি চালাচ্ছিল না। অবশেষে পরিচালক দ্বারস্থ হয়েছিল সুপ্রিম কোর্টে। সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি ডি ওয়াই চন্দ্রচূড় এর নেতৃত্বাধীন বেঞ্চ বলেন – এটা পরিষ্কার যে রাজ্য সরকারই ছবিটি বাধা প্রদানের ক্ষেত্রে কাজ করেছে। ছবিটি প্রদর্শনের ক্ষেত্রে বাধা দেয়ার জন্য রাজ্য সরকারকে কুড়ি লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দিতে হবে প্রযোজক সংস্থা কে।
কলকাতা আন্তর্জাতিক ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল এ মমতা ব্যানার্জির ছবি টাঙানো প্রসঙ্গে মুখ খুলেছিলেন পরিচালক অনিক দত্ত। তার পর থেকেই রাজ্য সরকারের রোষের মুখে পড়েন এই পরিচালক।

দেখুন ছবির ট্রেইলার

Leave a Reply