নিজস্ব প্রতিনিধি : এরিকসনের পাওনা টাকা মেটালো অনিল আম্বানির দাদা মুকেশ আম্বানি ও বৌদি নিতা আম্বানি। সমস্ত অতীত ভুলে ভাই কে বাচালো মুকেশ আম্বানি। গত ফেব্রুয়ারীতে সুপ্রিম কোর্ট দোষী সাব্যস্ত করেছিলেন অনিল আম্বানি কে। বলেছিলেন এরিকসনের পাওনা সাড়ে ৪০০ কোটি টাকা না পেলে রিলায়েন্স কর্তা কে জেলে যেতে হবে। তার মেয়াদ ছিল গতকাল সোমবার। অনিল আম্বানির সেই সাড়ে ৪০০ কোটি টাকা মিটিয়ে এরিকসন কে মুকেশ আম্বানি ও বৌদি নিতা আম্বানি।
অনিল আম্বানি আপাতত জেল থেকে বাঁচল। আজকে অনিল আম্বানি টুইট করে তার দাদা ও বৌদি কে ধন্যবাদ জানিয়ে লিখেছে। পরিবারের সম্মান বাঁচানোর জন্য ধন্যবাদ। ধীরুভাই আম্বানির জীবন অবসানের পরে রিলায়েন্স কোম্পানি ভাগ হয়ে যায় দুই ভাইয়ের। মা ককিলাবেন দুই ভাই এর মধ্যে সম্পর্ক জোড়া লাগানোর জন্য অনেকদিন ধরেই চেষ্টা চালিয়ে আসছে। আপাতত গত বছর থেকে সম্পর্ক একটা ভালো জায়গায় এসেছিল বলে জানা যায়।
এরিকসন কোম্পানি সুপ্রিম কোর্টে অভিযোগ করেছিল যে অনিল আম্বানির কোম্পানি রিলায়েন্স তার পাওনা সাড়ে ৪০০ কোটি টাকা ফেরত দিচ্ছে না। অথচ রাফায়েল প্লেন বানানোর জন্য তিনি বরাত পাচ্ছেন। এরিকসনের মামলার শুনানি শেষে পাওনা টাকা দেওয়ার সময়সীমা বেঁধে দেন সুপ্রিম কোর্ট। শেষ দিনে মুকেশ আম্বানি এরিকসনের টাকা মিটিয়ে দিয়ে ভাইয়ের সম্মান বাঁচালেন।

Leave a Reply